সব
ঢাকা Translate Bangla Font Problem

করোনা আত্মকথা

AUTHOR: Amarbangla Desk
POSTED: Sunday 26th April 2020at 12:04 am
182 Views

 

ডা. আখতারুজ্জামান

জন্ম আমার মঙ্গল গ্রহে, কবে কখন জন্মেছি মনে নেই
শুধু মনে পড়ে আকাশে দেখেছি, প্রজ্বলিত এক নক্ষত্র
আবার মিশে গেছে মহাশূন্যে।
হাজার বছর কেটে গেছে, আবারো দিত সেই নক্ষত্র
এভাবে বহুবার দেখেছি, যার হিসেব আমার কাছে নেই।।

পৃথিবী নামে গ্রহ আমার ছিল অজানা
শুধু দূর থেকে দেখেছি অস্পষ্ট একটা আলো-
আবার মিলিয়ে যেত অন্ধকার- অজানায়
তাই ইচ্ছে হলো ঘুরে আসি পৃথিবীর আঙিনায়।।

আমি যেখানে অবতরণ করলাম সেটা চীন দেশ
সব কিছু গোছানো পরিপাটি নেই কোন কেস,
ঘুরে দেখলাম সুন্দর পৃথিবী, শহর নগর বন্দর
আকাশচুম্বী প্রাসাদ আর রকমারি গাড়ির বহর,
সবুজে ঘেরা গ্রামগুলো ছবির মত লাগে
মাঠ ভরা ফসল আর বসন্ত পুষ্প বাকি।।

সবকিছু ভালো কিন্তু কানে এলো এক বিষাদ ময় কথা
পেট ভরে খাত ফুর্তি কর নাই ব্যক্তি স্বাধীনতা
আল্লাহর সৃষ্টি মানুষ, কে হবে তার- অধিকার
এভাবে আর চলবে না করতে হবে প্রতিকার।।

অবশেষে গোলাম উবাও প্রদেশ এই উহান শহর
সেখানে গিয়ে আরেক দৃশ্য বন্য পল্লীর বহর,
জবাই করে প্রাণীগুলো রাখা শাড়ি শাড়ি
কুকুর বিড়াল সাপ-বিচ্ছু বাদুড় রকমারি,
বনের পশু থাকবেন এটাই তার অধিকার
ক্ষমতার দাপটে মানুষ কেড়ে শেষ সব স্বাধীকার।।

আকাশে কালোধোঁয়া, হিলিমায় গ্রাসে গ্রীনহাউজ বিনষ্ট
শিল্পবর্জ্যে নদী বিলীন বায়ু দূষণে শ্বাসকষ্ট,
এভাবে বিলীন হবে পৃথিবী জীবহবে নিশ্চিহ্ন
থাকবেনা সভ্যতা থাকবেনা থাকবেনা প্রাচুর্য সব হবে ছিন্নভিন্ন
সহ‌্য হলোনা পৃথিবীর মানুষের এহেন কর্ম
এরা ভুলে গেছে স্রষ্টা, ভুলে গেছে ধর্ম
স্রষ্টাকে বললাম হে প্রভু আমায় শক্তি দাও
আমারমত লাখো করোনা পৃথিবীতে পাঠিয়ে দাও
কবুল করলেন সৃষ্টিকর্তা আমার প্রার্থনা
কানুক্ষিত পৃথিবী মুক্ত করতে পাঠালেন করো না।।

অবশেষে গেলাম ইউরোপ সেখানেও একই দৃশ্য
অশ্লীলতা বেহায়াপনায় ভরেছে সারা বিশ্ব
পৃথিবী আজ ভারসাম্যহীন জরাজীর্ণ গ্রহ
স্রষ্টার কাছে আহাজারি করে, দয়াময় করো অনুগ্রহ,
সব ঘুরে এবার এলাম বাংলাদেশ, এজে আজব রাষ্ট্র
কোঠারি করে রোগীর চিকিৎসা ডাক্তার কাটে কাষ্ঠ্র
প্রকৌশলী করে দর্জির কাজ, দর্জি বানায় ভবন
ছাত্র পেটায় শিক্ষক, আর শিক্ষক ধরে চরণ।।

রাজাকারের গায়ে মুজিব কোট
চলছে হরেক রকম তামসা
মুজিব বক্ত মুজিব কোট ছেড়ে
গলায় বেধেছে গামছা
রাজনীতি করে পোটি বুর্জোয়া
আমলারা কামলারা
আছে কেসিনো কারবারি
ব্যাংক লুটকারী এবং পাপিয়ারা
এদের আছে উন্নত দেশে
আলিশান বাড়ি আছে বেগম পাড়া
দেশে দুঃসময়ে এলে
বিমানযোগে উড়াল দেন তারা
রিলিফের চাল চুরি করে
রাখে মাটির নিচে গেরে
প্রতিবাদ করলে খবর আছে
মারতে আসেন তেড়ে,
সরকারিখাতে ২২ টাকার বালিশ
রশিদ ২২ হাজার
সাইট হাজার টাকার এক পর্দা
প্রতিকার নাই তার
পাঁচ-সাতটি বাড়ি করেন
এয়ারপোর্ট এর মালি
সব খতিয়ান লিখতে গেলে
ফুরাবে সবকালি।।

পৃথিবীর এক অনন্য দেশ
দ্বিতীয়টি আর নাই,
এমন আজব দেশের আজব মানুষ
আর কোথাও না পাই,
সার্থক জন্ম আমার এই দেশেতে এসে
জ্ঞানের ভান্ডার পূর্ণ হল এসে বাংলাদেশ।।

হে পৃথিবীর মানুষ
তোমাদের উদ্দেশ্যে কিছু কথা বলি
আমার পরম শেষ হলে পরে আমি যাব চলি
পৃথিবী কে বাঁচাও নিজে বাঁচ
জাগ্রত করো হুশ
জানোয়ার হয়ে বেঁচে কি লাভ
এবার হও মানুষ।
পৃথিবী বাঁচলে তুমি বাঁচবে
এর বিকল্প নাই
বন্ধ করো অনাচার অত্যাচার
নহেতো নাই কোথাও ঠাঁই।
তোমাদের পাপের কলুক্ষেত্র পৃথিবী
পাপের পঙ্কিল দেহ
ক্ষোভে অভিমানে রুদ্র মুতি
বুঝোনি যাহা কে হ।।

কিসের বড়াই তোমাদের তোমরা কত বড় ক্ষমতাধর
ধূলিকণা সব ভাইরাসের ভয়ে কাঁপিতেছে থর থর
কোথায় তোমার বারুদ কোথায় তোমার কামান
কোথায় তোমার ট‌পের্ড মিসাইল কোথায় বোমারু বিমান
ছাড়ো তোমাদের বড় গিরি ছাড়ো বাহাদুরি
অশ্লীলতা বেহায়া পনা ছাড় জারিজুরি
এখনো সময় আছে তার কাছে কর আত্মসমর্পণ
যিনি সৃষ্টি করেছেন তোকে আমাকে, সুন্দর এ ভূবন
বল হে প্রভু তুমি দয়াময় তুমি গাফফার তুমি জব্বার,
হে রহমান করোনা সময় করুণা চাই তোমার।

অনেক কথা বললে করোনা, এবার তোমায় প্রশ্ন রাখি?
তোমার তাণ্ডব শেষ হবে কবে, আর কতদিন বাকি!
আমার ভিশন শেষ হলে পরে আমি মার চলি
তোমাদের কবি নজরুলের সাথে কন্ঠ মিলিয়ে বলি
যেদিন উৎ পিরিতের ক্রন্দন রোল আকাশে বাতাসে ধ্বনিবেনা
অত্যাচারী খ‌‌র্গ কৃপাণ ভীম রণভুমে রণিবেনা,
বিদ্রোহী রণ ক্লান্ত, আমি সেই দিন হব শান্ত,,

বি দ্র; বহুদিন পর লিখলাম, বানান ভুল হওয়াই স্বাভাবিক, ক্ষমার দৃষ্টিতে দেখবেন।।


সর্বশেষ খবর