সব
ঢাকা Translate Bangla Font Problem

ঝিনাইদহে ‘কেয়ার হাসপিটালে’ ভুল চিকিৎসায় প্রসূতির মৃত্যু, ২লাখ টাকায় রফাদফা

AUTHOR: Firoz
POSTED: Saturday 19th October 2019at 6:26 am
196 Views

ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ ঝিনাইদহ কেয়ার হসপিটালে ভুল চিকিৎসায় প্রসূতির মৃত্যু ঘটেছে। ঝামেলা এড়াতে সদর হাসপাতালের আরএমও পদে থাকা ও কেয়ার হসপিটালের মালিক ডাঃ অপূর্ব কুমার শাহা রোগির স্বামীকে ২লক্ষ টাকার চেক দিয়ে বিষয়টি মিমাংশা করেছে।

গত কাল শুক্রবার ঝিনাইদহ শহরের নতুন কোর্ট পাড়ায় ঘটনাটি ঘটেছে।

জানা গেছে গত ২১ সেপ্টেম্বর কোর্টপাড়ার নুর আলমের স্ত্রী বিথি খাতুনকে সিজার করাতে ঝিনাইদহ কেয়ার হসপিটালে ভর্তি করা হয়। কিন্তু সিজার করার পরে দুই দিন ধরে ব্লিডিং হতে থাকে এই অবস্থায় রোগিকে ডায়াবেটিকস হসপিটাল থেকে ডায়ালাইসিস করানোর চেষ্টা করে। অবশেষে রোগির কোন পরিবর্তন না হলে তাকে ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন এবং খরচ বাবদ ডাক্তার রোগিকে ১৫হাজার টাকা দেয়। রোগির অবস্থা বেশি খারাপ দেখা দিলে ফরিদপুর থেকে রোগিকে ঢাকায় নিয়ে যেতে বলে কিন্তু রোগির সামর্থ না থাকায় তারা রোগিকে খুলনা গাজি প্রাঃ হাসপাতালে চিকিৎসা করাতে থাকেন। এভাবে দীর্ঘ ১মাস যাবৎ চিকিৎসা চলার পরে বৃহস্পতিবার রাত রোগির মৃত্যু হয়। রোগির স্বজনরা কেয়ার হসপিটালের ডাক্তার অপূর্ব কুমার সাহার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নিতে চাইলে ডাঃ রোগির স্বামীকে ২লক্ষ টাকার একটি চেক প্রদান করে দ্রুত লাশের দাফন কাফনের ব্যবস্থা করতে বলেন। চেকটি রোগির স্বামী আগামী রবিবার ক্যাশ করবেন বলে জানিয়েছেন।

এবিষয়ে ডাঃ অপূর্ব কুমার সাহা বলেন ভুল চিকিৎসায় রোগি মারা যায়নি মানবিক কারনে রোগিকে আগেও ১৫হাজার টাকা দিয়েছি এবং মৃত্যুর পর ২লক্ষ টাকা সাহায্য দিয়ে পাশে দাড়িয়েছি।

এবিষয়ে পাগলাকানাই ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম জানান ঘটনাটি আমি শুনেছি , ২লাখ টাকার বিনিময়ে বিষয়টি মিমাংশা করার চেষ্টা চলছে।

উল্লেখ্য, ঝিনাইদহ কেয়ার হসপিটালের নামে ইতিপূর্র্বে ভুল চিকিৎসায় বেশ কয়েক জন পঙ্গুত্ব বরন করেছেন ও মারাও গেছেন মর্মে ব্যাপক অভিযোগ রয়েছে। তাছাড়া ঝিনাইদহ সদর হাসপাতাল থেকে রোগী ভাগিয়ে নিয়ে এসে অপরেশন করানো, তবে এসব কাজে সহযোগিতা করেন সদর হাসপাতালের নার্স, আয়া ও ওয়ার্ডবয়রা।